খোলা আকাশের নিচে হাজার হাজার নেতাকর্মী

খোলা আকাশের নিচে হাজার হাজার নেতাকর্মী

বরিশালে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশের একদিন আগেই রাতে খোলা আকাশের নিচে অবস্থান নিয়েছে বিএনপির হাজার হাজার নেতাকর্মী। সমাবেশস্থলেই রাত্রিযাপন করবে বিভাগের ৬ জেলা ও উপজেলা থেকে আসা নেতাকর্মীরা।

এদিকে শনিবার সমাবেশ উপলক্ষে রাতের মধ্যেই প্রস্তুত করা হয়েছে মঞ্চ। অপরদিকে বিএনপি নেতাকর্মীদের হুলস্থূলের কারণে সমাবেশস্থলে সংবাদ সংগ্রহে সাংবাদিকদের জন্য করা স্টেজ ভেঙে পরে ২ সাংবাদিক আহত হওয়ার খবর মিলেছে।

শুক্রবার রাত ৮টার পর থেকেই সমাবেশস্থলে ভিড় জমে যায়। মিছিল সহকারে নেতাকর্মীরা আসতে থাকেন সমাবেশস্থল বঙ্গবন্ধু উদ্যানে। কারো হাতে কম্বল আবার কারো হাতে ছিল পাটি। রাতে অবস্থান নেওয়ার জন্য সব প্রস্তুতি নিয়েই সমাবেশস্থলে এসেছে তারা।

ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার চরমাইক্কা ইউনিয়নের যুবদলের সাধারণ সম্পাদক রহিম সরদার বলেন, সব কিছু বন্ধ থাকায় বৃহস্পতিবার সমাবেশস্থলে এসেছি। ট্রলার নিয়ে চরফ্যাশন থেকে আমরা ২শ নেতাকর্মী বরিশালে এসে সমাবেশস্থলেই থাকছি। রাতে নিরাপত্তার জন্য তাঁবু টানিয়ে গতরাতে থেকেছি, আজও থাকবো। আগামীকাল সমাবেশ সফল করে বাড়ি ফিরবো।

বরগুনার বেতাগী উপজেলা থেকে আসা স্বেচ্ছাসেবক দলকর্মী অলিউল ইসলাম বলেন, কোনো বাধাই আটকে রাখতে পারবে না আমাদের। আমাদের অনেক নেতাকর্মী সাইকেল চালিয়ে ও হেটেও আসছে। আমরা রাতে এখানে থাকছি সমাবেশ সফল করার জন্য। আন্দোলন সফলে রাতে থাকছি সমাবেশস্থলে।

কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস জাহান শিরিণ বলেন, আমাদের হাজার হাজার নেতাকর্মী সমাবেশস্থলে অবস্থান নিয়েছে। সরকারের কোনো বাধাই কাজে আসেনি।অন্যদিকে সমাবেশস্থলে সংবাদ সংগ্রহের জন্য সাংবাদিকদের জন্য করা স্টেজ বিএনপি কর্মীদের হুলস্থূলের কারণে ভেঙে পরেছে।

সময় টিভির বরিশালের ক্যামেরা পার্সন সুজয় দাস বলেন, বিএনপি নেতাকর্মীরা সাংবাদিকদের জন্য করা স্টেজে উঠে লাফালাফি করছিল। আমরা সে সময় অনেক সংবাদকর্মী কাজ করছিলাম। বিএনপি কর্মীদের প্রথমবার নামিয়ে দেওয়ার তারা পুনরায় স্টেজে উঠে লাফালাফি শুরু করলে স্টেজটি ভেঙে পরে। এতে আমি মাথায় আঘাত পেয়েছি। এছাড়াও আরও একজন আহত হয়েছে ও একটি টিভি ক্যামেরাও ভেঙে গেছে।

এদিকে বঙ্গবন্ধু উদ্যানে সমাবেশ মঞ্চ প্রস্তুত সম্পন্ন হয়েছে।

বরিশাল বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশের মঞ্চ প্রস্তুত কমিটির যুগ্ম আহবায়ক খন্দকার আবুল হোসেন লিমন বলেন, ৫০ ফুট দৈর্ঘ্য ও ২৫ ফুট প্রস্থ মঞ্চ তৈরি করা হয়েছে। ব্যানারও লাগানো শেষ হয়েছে। এছাড়াও সমাবেশস্থলসহ আশে পাশে ১২০টি মাইক লাগানো হয়েছে।

Advertisement