সমর্থন জিএম কাদেরকে বিরোধীদলীয় নেতা করার সিদ্ধান্তে

সমর্থন জিএম কাদেরকে বিরোধীদলীয় নেতা করার সিদ্ধান্তে

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জিএম কাদেরকে বিরোধীদলীয় নেতা করতে সংসদীয় দলের সভার সিদ্ধান্তের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্যরা। এছাড়া পার্টির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারীদের সঙ্গে হাত মেলালে, তিনি যে পর্যায়ের নেতাই হোন না কেন-তার বা তাদের বিরুদ্ধে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

শনিবার জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের বনানীর কার্যালয় মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত দলটির প্রেসিডিয়াম সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা জিএম কাদের এমপি।

সভায় জিএম কাদেরের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টিকে আরও সুসংহত, গতিশীল এবং শক্তিশালী করার বিষয়ে প্রেসিডিয়াম সদস্যরা একমত পোষণ করেন। জাতীয় পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু এমপি, কো-চেয়ারম্যান এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি, বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মো. মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য-মো. আবুল কাশেম, হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, আলহাজ সাহিদুর রহমান টেপা, শেখ মুহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, ফকরুল ইমাম এমপি, সৈয়দ মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান, সুনীল শুভরায়, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী, হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, এ টি ইউ তাজ রহমান, সোলায়মান আলম শেঠ, নাসরিন জাহান রতনা এমপি, আব্দুর রশীদ সরকার, আলহাজ শফিকুল ইসলাম সেন্টু, ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি, মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা, রেজাউল ইসলাম ভ‚ঁইয়া, মো. মিজানুর রহমান, সৈয়দ দিদার বখ্ত, নাজমা আখতার এমপি, আব্দুস সাত্তার মিয়া, আলমগীর সিকদার লোটন, এমরান হোসেন মিয়া, মেজর (অব.) রানা মোহাম্মদ সোহেল এমপি, লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি, নাছির উদ্দিন মাহমুদ, মো. জহিরুল ইসলাম জহির, মোস্তফা আল মাহমুদ, মোহাম্মদ আতিকুর রহমান আতিক উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া সংসদ-সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা শেরীফা কাদের, নুরুল ইসলাম তালুকদার, শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ, পনির উদ্দিন আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান আহসান আদেলুর রহমান।

আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশের মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে-জিএম কাদের : পার্টি চেয়ারম্যানের বনানীর কার্যালয়ে মৌলভীবাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলতাফুর রহমানের নেতৃত্বে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কয়েকজন নেতাকর্মীর জাতীয় পার্টিতে যোগদান অনুষ্ঠানে পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেন, জাতীয় পার্টি সম্বন্ধে অনেকের ভুল ধারণা আছে। জাতীয় পার্টি কখনোই আওয়ামী লীগের বি-টিম নয়। বিরোধীদলীয় উপনেতা বলেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশের মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। তারা দেশের মানুষের সঙ্গে মিথ্যাচার করে বলেছে, পল­ীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জাতীয় পার্টির শাসনামলের চেয়ে জনগণকে বেশি অধিকার দেওয়া হয়েছে। আসলে পল­ীবন্ধুর দেশ পরিচালনার সময় সাধারণ মানুষ যে অধিকার ভোগ করেছে, এখন তার ছিটেফোঁটাও নেই।

তিনি বলেন, দেশে নারীরাও এখন অপহরণ হচ্ছে। হতভাগ্য নারীদের কেউ ফিরে আসছেন, আবার কেউ চিরদিনের মতো হারিয়ে যাচ্ছেন। বিদেশি গণমাধ্যমে এমন সংবাদে দেশের ভাবমূর্তি মারাÍকভাবে ক্ষুণœœ হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, দেশে এখন আর গণতন্ত্র নেই। দেশের মানুষের কোনো অধিকার নেই। দেশের কোথাও জবাবদিহিতা নেই।

তিনি বলেন, এখন নির্বাচনের নামে প্রহসন চলছে। প্রজাতন্ত্রের মালিক হচ্ছেন দেশের সাধারণ মানুষ। অথচ তারা ইচ্ছামতো প্রতিনিধি নির্বাচন করতে পারছেন না, এমনকি পছন্দমতো না হলে প্রতিনিধি পরিবর্তনেও তারা আজ অপারগ। সরকার পরিচালনায় জনগণের ইচ্ছা-অনিচ্ছার প্রতিফলন দৃশ্যমান নয়। এক কথায় জনগণ মালিক বা দেশ যে প্রজাতন্ত্র তা বাস্তবে অনুপস্থিত। দেশের ওপর সাধারণ জনগণের মালিকানা স্বত্ব¡ ছিনতাই হয়ে গেছে। তাই সাধারণ মানুষ রাজনীতি ও ভোটের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছেন। আমরা চাই প্রকৃত গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে। প্রকৃত গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হলে দেশে জবাবদিহিতার পরিবেশ সৃষ্টি হবে, সুশাসন প্রতিষ্ঠিত হবে। মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে বৈষম্য দূরীকরণ, দুর্নীতির অবসান ও বেকারত্বের অভিশাপমুক্ত সুখী-সমৃদ্ধিশালী নতুন বাংলাদেশ গড়াই আমাদের রাজনীতি।

যোগদান অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন পার্টির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু এমপি, আতিকুর রহমান আতিক, মৌলভীবাজার জেলা আহ্বায়ক কামাল উদ্দিন, সদস্য সচিব মাহমুদ আলম মাহমুদ।

Advertisement