প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে বিদ্যালয়ের আসবাবপত্র বিক্রির অভিযোগ

বিদ্যালয়ের আসবাবপত্র বিক্রির অভিযোগ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আসবাবপত্র বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের নয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে স্থানীয় লোকজন এসব মালামাল জব্দ করে।

এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন সোমবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

হারবাং ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ওয়ালিদ বিন ফরহাদ বলেন, বিকালে স্কুলের একটি আলমারি, চারটি লোহার রড় ও তিনটি টিন রিকশা ভ্যানে করে নিয়ে যাওয়ার খবর পাই। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে বিষয়টি চেয়ারম্যানকে জানানোর পর এসব মালামাল জব্দ করা হয়।

স্কুলের দাতা পরিবারের সদস্য ডা. শামসুল ইসলাম বলেন, এর আগেও স্কুলের পুরাতন ভবনের বিভিন্ন মালামাল লোহার রড় ও স্কুলের বইপত্র বিক্রি করেছেন প্রধান শিক্ষকা রাশেদা বেগম। তিনি দীর্ঘদিন ধরে এই স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে রয়েছেন।

হারবাং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মেহেরাজ উদ্দিন মিরাজ বলেন, প্রধান শিক্ষক রাশেদা বেগম আসবাবপত্র বিক্রির উদ্দেশ্যে পাচারের সময় স্থানীয় লোকজনের কাছে থেকে খবর পেয়ে চৌকিদার পাঠিয়ে মালামাল জব্দ করে ইউপি কার্যালয়ে রাখা হয়েছে।

এদিকে প্রধান শিক্ষিকা রাশেদা বেগম বলেন, আলমারি নষ্ট হওয়ায় স্কুল কমিটির সভাপতি ও সদস্যদের অনুমতিক্রমে ঠিক করতে মেকানিকের কাছে পাঠানো হচ্ছিল। এসময় স্কুলের জমি নিয়ে বিরোধ থাকা কিছু দুষ্কৃতকারী ভ্যানসহ আটকে রাখে। বিষয়টি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে অবগত করা হয়েছে।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেপি দেওয়ান বলেন, বিষয়টি জেনেছি। এ বিষয়ে অভিযোগের সত্যতা পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

0 মন্তব্যসমূহ

-------- আমাদের সকল পোস্ট বা নিউজ বাংলাদেশের বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকা থেকে নেয়া - প্রতিটি পোস্টের ক্রেডিট সেই পোস্টের শেষ ভাগে দেয়া আছে।