অনলাইনে অগ্রিম অর্ডার চলছে ব্রাজিলের বিশ্বকাপ জার্সির

অনলাইনে অগ্রিম অর্ডার চলছে ব্রাজিলের বিশ্বকাপ জার্সির

ফুটবল বিশ্বকাপের পর্দা উঠতে আর ৩ মাস বাকি। তবে এর অনেক আগেই ব্রাজিল দলটির বিশ্বকাপ জার্সিটি প্রকাশ্যে এনেছেন দেশটির সাবেক তারকা রোনালদো।

৯ আগস্ট এক অনুষ্ঠানে ব্রাজিল বিশ্বকাপ জার্সি উন্মোচন ২০০২ বিশ্বকাপজয়ী তারকা। জার্সির মডেল হয়েছিলেন ব্রাজিলের বর্তমান দলের ফুটবলার রদ্রিগো, কুতিনহো, মার্কুইনহোস, রিচার্লিসন এবং অ্যালিসন।

ওই অনুষ্ঠানে নিয়ে আসা জার্সিগুলোর সবকটি মুহূর্তের বিক্রি হয়ে যায়।  তবে অফিসিয়ালি ভক্তদের ব্রাজিলের বিশ্বকাপ জার্সি পেতে আরও কিছুদিন সময় লাগবে।

জানা গেছে, পাঁচবারের বিশ্বজয়ীদের বিশ্বকাপ জার্সি পেতে অপেক্ষা করতে হবে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। 

ব্রাজিলের বিশ্বকাপ জার্সি তৈরিকারী প্রতিষ্ঠান নাইকি। তারাই এই জার্সি বাজারজাত করবে বিশ্বব্যাপি। অনলাইন এবং অফলাইনে পাওয়া যাবে নেইমারদের হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে জার্সি।

ইতোমধ্যে অগ্রিম অর্ডার নেওয়া শুরু হয়ে গেছে।  নাইকির অনলাইন স্টোর ছাড়াও অ্যামাজন, প্রোডিরেক্টসকার নামে একটি প্রতিষ্ঠানের অনলাইনেও অগ্রিম অর্ডার নিচ্ছে। 

প্রোডিরেক্টসকার অনলাইন শপটি প্রতিটি জার্সিতে ৩৫ শতাংশ ছাড়ের ঘোষণা দিয়েছে।

অগ্রিম অর্ডার নেওয়া এখনও জার্সির মূল্য নির্ধারণ করেনি নাইকি।  এজন্য ব্রাজিল ফুটবল ভক্তদের অপেক্ষা করতে হবে আরও কিছুদিন।

এবারের জার্সিতে দারুণ এক নতুনত্ব নিয়ে এসেছে ব্রাজিল। দলটির বিখ্যাত হলুদ এবং সবুজ জার্সির মধ্যে চিতা বাঘের (জাগুয়ার) চামড়ার জলছাপ দেয়া হয়েছে।  

ব্রাজিলের সাধারণ মানুষের প্রতীক হচ্ছে চিতা বাঘ (জাগুয়ার)। সেই প্রতীককেই উৎকীর্ণ করা হয়েছে কাতার বিশ্বকাপে ব্রাজিলের জার্সিতে।

একই কারণে জার্সিটিকে পরিবেশ বান্ধব বলা হচ্ছে। বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে উদ্বুধ্ব করার লক্ষ্যেই এবার তাদের জার্সিতে চিতা বাঘের চামড়ার প্রিন্ট দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্রাজিলের ফুটবল ফেডারেশন।

0 মন্তব্যসমূহ