গবাদিপশু বাঁচাতে স্বামী-স্ত্রী আগুনে দগ্ধ

গবাদিপশু বাঁচাতে স্বামী-স্ত্রী আগুনে দগ্ধ

আগুনের হাত থেকে গবাদিপশু বাঁচাতে গিয়ে মারাত্মক দগ্ধ হয়েছেন স্বামী-স্ত্রী। গত মঙ্গলবার গভীর রাতে টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার দিঘলকান্দি ইউনিয়নের তেরবাড়িয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আগুনে দগ্ধ স্বামী-স্ত্রীকে আজ বুধবার ভোরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রতিবেশী শিহাব হোসেন জানান, গত মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে তেরবাড়িয়া গ্রামের কৃষক শাহাদৎ হোসেন সাধুর গোয়াল ঘরে আগুন লাগে।

আগুন দেখে শাহাদৎ হোসেন (৫৫) ও তার স্ত্রী জয়মনা (৪৫) গরু ও ছাগল বাঁচাতে দৌড়ে গোয়ালঘরে প্রবেশ করেন। এ সময় তারা আগুনের হাত থেকে তাদের একমাত্র সম্বল গবাদিপশু বাঁচানোর চেষ্টা করেন।  

এ সময় আগুনে পুড়ে যাওয়া ঘরের চাল তাদের ওপরে পড়ে। আগুনের লেলিহান শিখা চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় স্বামী-স্ত্রী দুজনকেই উদ্ধার করেন। স্থানীয়রা প্রায় দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

উদ্ধারকারী প্রতিবেশীরা জানান, সমস্ত ঘরে আগুন ছড়িয়ে পড়লে শাহাদৎ ও তার স্ত্রী ঘরের ভেতর আটকা পড়ে যান। এ ঘটনায় গোয়ালঘরে থাকা একটি গরু ও চারটি ছাগল সঙ্গে সঙ্গে মারা যায়। দুটি গরু গুরুতরভাবে দগ্ধ হয়।

প্রতিবেশীদের ধারণা, গোয়ালঘরের পাশের রান্না ঘরের চুলা থেকে আগুন লাগতে পারে। শাহাদৎ হোসেন মেয়ে নারগিস আক্তার জানান, তার বাবার শরীর প্রায় সত্তর শতাংশ এবং মায়ের শরীরের প্রায় ৩০ শতাংশ পুড়ে গেছে বলে চিকিৎসকরা তাদের জানিয়েছেন।

একদিকে একই রাতে উপজেলার জামুরিয়া ইউনিয়নের কোনাবাড়ি গ্রামে ফরহাদ হোসেনের বাড়ির গোয়ালঘরে আগুন লেগে দুটি গরু দগ্ধ হয়েছে। এছাড়া উপজেলার লক্ষিন্দর গ্রামে সোহেল মিয়ার লেবু বাগানের টং ঘরে আগুন লেগে সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে। মালিকের দাবি এতে তার লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে।

0 মন্তব্যসমূহ

-------- আমাদের সকল পোস্ট বা নিউজ বাংলাদেশের বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকা থেকে নেয়া - প্রতিটি পোস্টের ক্রেডিট সেই পোস্টের শেষ ভাগে দেয়া আছে।