সৌদিকে ‘সন্ত্রাসবাদে’ অভিযুক্ত করলেন হিজবুল্লাহ প্রধান

সৌদিকে ‘সন্ত্রাসবাদে’ অভিযুক্ত করলেন হিজবুল্লাহ প্রধান

সৌদি আরব জঙ্গিগোষ্ঠী আইএসের মতাদর্শ রপ্তানি করছে বলে অভিযোগ তুলেছেন হিজবুল্লাহ মহাসচিব হাসান নাসরুল্লাহ। তিনি আরও অভিযোগ করেন, দেশটি ইরাকে আত্মঘাতী হামলা চালাতে বিস্ফোরক ভর্তি গাড়ি পরিবহন করছে। খবর প্রকাশ করেছে আল জাজিরা।

সোমবার (৩ জানুয়ারি) এক টেলিভিশন ভাষণে সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজকে উদ্দেশ্য করে হাসান নাসরুল্লাহ বলেন, ‘মহামান্য, সন্ত্রাসী তারাই যারা দুনিয়ায় দায়েশ (আইএসের আরবি নাম)-এর মতাদর্শ রপ্তানি করে। সন্ত্রাসী তারাই যারা ইরাক ও সিরিয়ায় আত্মঘাতী অভিযান চালাতে হাজার হাজার সৌদি নাগরিক পাঠায়, আর এটা আপনি।’

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার কারণে এবং ইয়েমেনে সামরিক অভিযানের নেতৃত্ব দেওয়ায় সৌদি আরবের সমালোচনা করেন হাসান নাসরুল্লাহ। ইরান সমর্থিত লেবাননের হিজবুল্লাহ গোষ্ঠীর নেতা বলেন, ‘আমরা সৌদি আরবে আক্রমণ করিনি। তারা আরও বড় ষড়যন্ত্রে যুক্ত যাতে এই অঞ্চল ধ্বংস হয়ে যায়।’ সৌদি আরব, বাহরাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং কুয়েতের সঙ্গে কূটনৈতিক বিরোধ নিরসনে হিমশিম খাচ্ছে লেবানন। ইয়েমেনসহ ওই অঞ্চলের সংঘাতগুলোতে হিজবুল্লাহর ভূমিকার সমালোচনা করে থাকে এই দেশগুলো।

গত অক্টোবরে উপসাগরীয় দেশগুলো লেবানন থেকে তাদের রাষ্ট্রদূত প্রত্যাহার করে নেয়। আর লেবাননে সব ধরনের রপ্তানি নিষিদ্ধ করে সৌদি আরব। লেবাননের তৎকালীন তথ্যমন্ত্রী জর্জ কোরদাহি ইয়েমেনে সৌদি জোটের ভূমিকার সমালোচনা করছেন। এমন একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর এসব পদক্ষেপ নেওয়া হয়। গত সপ্তাহে সৌদি বাদশাহ সালমান এক ভাষণে লেবানন রাষ্ট্রে ‘সন্ত্রাসী হিজবুল্লাহর’ আধিপত্য থামানোর তাগিদ দেন।

0 মন্তব্যসমূহ