টিকটক করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় কালাইয়ের মেয়রএর বিগ্ড়েযাওয়া টিকটকার পুত্র নিহত

টিকটক করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় কালাইয়ের মেয়রএর বিগ্ড়েযাওয়া টিকটকার পুত্র নিহত

মোটরসাইকেল চালিয়ে টিকটক করতে গিয়ে হৃদয় হোসেন নামে এক বিগ্ড়েযাওয়া কিশোর নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো ৬ জন। মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) বিকেলে জেলার পাঁচবিবি উপজেলার জয়পুরহাট-হিলি সড়কের দরগাপাড়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।নিহত হৃদয় হোসেন জয়পুরহাটের কালাই পৌর মেয়র রাবেয়া সুলতানার ছেলে।

আহতরা হলেন- নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার নুর মোহাম্মদের ছেলে আল আমিন (৪০), একই উপজেলার সবুজ উদ্দিনের ছেলে মাসুদ রানা (৪০), জয়পুরহাটের কালাই উপজেলার আল আমিন (৩০), একই উপজেলার মৃত বনু মিয়ার ছেলে নাজমুল (৩০), ছাদেকুল ইসলামের ছেলে মো. রনি (২০), মোজাফফর হোসেনের ছেলে মো. ছাব্বির (৩০) ও হারুঞ্জা গ্রামের বুলবুলের ছেলে নাজমুল (২২)।

পাঁচবিবি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পলাশ চন্দ্র দেব বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, হৃদয় হোসেনসহ কয়েকজন বন্ধু মিলে জয়পুরহাট-হিলি সড়কে মোটরসাইকেল চালিয়ে টিকটক করছিলেন। এ সময় তাদের মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে হিলির দিকে আসা অপর ২টি মোটর সাইকেলের সঙ্গে সংঘর্ষে কালাই পৌর মেয়র রাজিয়া সুলতানার ছেলে হৃদয় ঘটনাস্থলে মারা যান। এ সময় গুরুতর আহত হন আরও ৬ জন। খবর পেয়ে পাঁচবিবি ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন।

আহতদের মধ্যে রনি, আলামিন সাব্বিরের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদের বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

0 মন্তব্যসমূহ

-------- আমাদের সকল পোস্ট বা নিউজ বাংলাদেশের বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকা থেকে নেয়া - প্রতিটি পোস্টের ক্রেডিট সেই পোস্টের শেষ ভাগে দেয়া আছে।