মালয়েশিয়া গিয়ে কি করবেন ?

মালয়েশিয়া গিয়ে কি করবেন ?


খুলছে আবার মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার এখন কথা হলো মালয়েশিয়া গিয়ে কি করবেন আপনারা ? যারাই মালয়েশিয়া যাবার ইচ্ছায় রাতের ঘুম হারাম করছেন তারা কি একবারও মালয়েশিয়া থাকা বাংলাদেশিদের খবর নিয়ে দেখেছেন মালয়েশিয়া শ্রমিক দের কি অবস্থা , তারা কি অবস্থায় আছে বা তাদের কর্ম জীবন কেমন যাচ্ছে ? 

জানেন কি মালয়েশিয়া কেনো কর্মী নিয়োগ দিচ্ছে যেখানে তাদের নিজের দেশেরই ৪৮% যুবক বেকার হয়ে আছে ? 
মালয়েশিয়া খুবই চাপের মধ্যে আছে যেই পরিমান টাকা মালয়েশিয়া ধার হিসেবে নিয়ে ছিল নাজিব রাজ্জাক ক্ষমতায় থাকা কালে বিভিন্ন দেশ থেকে সেই টাকা পরিশোধ হবার আগেই কোরোনার হানা পড়ে এই দেশে গত ২ বছর যাবৎ পুরো দেশ লোকডাউন ছিল এয়ারপোর্ট বন্ধ আছে ২ বছরের বেশি সসময় ধরে। এই সকল কিছুর মধ্যে মালয়েশিয়া আরো কয় এক বিলিয়ন ডলার দেনায় পড়ে গেছে।  

এমন অবস্থায় মালয়েশিয়ায় থাকা বড় বড় কোম্পানিগুলো তাদের ব্যাবসা গুছিয়ে চলে যাচ্ছে তাই মালয়েশিয়া বর্তমান সরকার সেইসকল চাপ থেকে বাঁচার জন্য অন্য উপায় টাকা ইনকামের পথ হিসেবে বিভিন্ন দেশ থেকে শ্রমিক নিয়োগ দেয়া শুরু করেছে যাদের থেকে মোটা অংকের লেভি পাবে সরকার। 

SPONSOR
মালয়েশিয়া দেশে যেই সকল শ্রমিক বর্তমানে অবস্থান করছে তাদের শতকরা বেশির ভাগ বেকার হয়ে আছে আজ ২ বছর হয়ে যাচ্ছে , যারা আগে থেকে বড় কোম্পানিতে কাজ করছে তারাই এখনো কর্মরত আছেন তাও তাদের প্রতিদিন কাটছে চাকরিরি হারাবার ঝুঁকিতে। 

মালয়েশিয়ার নতুন নিয়ম অনুযায়ী কোনো ভিন্নদেশী ক্যাশিয়ার , সেলসম্যান , বা উপরের কোনো পদে কাজ করতে পারবেনা সেই সকল পদে শুধু মাত্র মালয়েশিয়ান থাকতে     হবে। 

এমন অবস্থায় যারা ছোট কোম্পানি বা বিভিন্ন দোকান পাটে কাজ করছে তারা কোনো রকম নিজের খাবার আর থাকার খরচ উঠতে পারছে , কারণ মালয়েশিয়া পুরোপুরি ভাবে একটি টুরিস্ট নির্বরশীল দেশ বিগত ২ বছর সেই দেশে কোনো টুরিস্ট যেতে পারছে না এয়ারপোর্ট বন্ধ থাকায় , আর এর প্রভাব পুরো মালয়েশিয়াতে পড়েছে।  

কর্মচারীদের বেতন কেটে কোনোরকমে টিকে আছে হাজারো লাখো কোম্পানি , বন্ধ হয়ে গেছে কয়েক হাজার কোম্পানি হোটেল, দোকান, রেস্টুরেন্ট।  

যদিও আপনি মালয়েশিয়া যান আর কোনো উপায়ে একটি চাকরিও জোগাড় করেন তাহলে মালয়েশিয়া রিংগিত হিসেবে ১২০০-১৩০০ রিংগিত মাসিক বেতন পাবেন  যা বাংলাদেশী টাকার মধ্যে ২৪/২৬ হাজার বা তার কম হবে , এর মধ্যে আপনার খাবার থাকা সবকিছুই আবার বছর শেষে ভিসা ,আর একটা কথা সব দেশের মতোই মালয়েশিয়া খাবার বা নিত্য প্রয়জনীয় দ্রব্য মূল্য কয়েক গুন বেড়েছে বাড়েনি শুধু মানুষের বেতন , মাস শেষ দেশে ১০-১২ হাজার টাকা পাঠাতে পারেন কিনা তাও সন্দেহ আছে।  

আর এই টাকা যদি বাংলাদেশে মাটি কেটে পরিবারের সঙ্গে থেকে কামাই করতে পারেন তাহলে মালয়েশিয়া গিয়ে পরিবার থেকে দূরে থেকে রাস্তা টয়লেট ,জাড়ু দিয়ে কামাই করার কোনো মনে আছে ? 
বাকিটা আপাদের নিজের বুঝ।

 

Advertisement