হারল বাংলাদেশ!

হারল বাংলাদেশ!

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের কারণে টানা কয়েক দিন বৃষ্টি হয়। এই বৃষ্টিতে দুই দিন খেলা মাঠে গড়ায়নি। ঢাকা টেস্টের পঞ্চম দিনে বুধবার (৮ ডিসেম্বর) ব্যাট হাতে লড়াই করতে পারেনি মমিনুলরা। দুই ইনিংস ব্যাটিং করেও ম্যাচ বাঁচাতে পারেনি টাইগাররা। ফলে ঢাকা টেস্ট এক ইনিংস ও ৮ রানে জিতল পাকিস্তান। এর আগে, চট্টগ্রাম টেস্টে ৮ উইকেটে জিতেছে সফরকারীরা।

এদিকে পঞ্চম দিন ৮৭ রানে প্রথম ইনিংসে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে শুরুটা ভালো করতে পারেনি মুমিনুলরা। দলীয় ১২ রান তুলতেই দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। টাইগার দুই ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয় ও সাদমান ইসলাম দ্বিতীয় ইনিংসে ফের হতাশ করলেন ভক্তদের। অভিষিক্ত জয় প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে আউট হয়ে ছিলেন।

তবে পঞ্চম দিন হাসান আলীর প্রথম বলেই চার মেরে রানের খাতা খুলেন জয়। কিন্তু এরপর ক্রিজে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। তিনি ৬ বলে ৬ রান করে সাজঘরে ফিরেন। সাদমান তাড়াহুড়ো করে খেলতে গিয়ে আফ্রিদির বলে এলবিডব্লিউ হন।

দলীয় ১৯ রানে হাসান আলীর বলে আউট হন মুমিনুল হক। বাংলাদেশের অধিনায়ক ৭ রান করে আউট হন। এরপর শান্ত ব্যক্তিগত ৬ রানে আউট হন। এরপর দলের হাল ধরেন মুশফিক-লিটন। কিন্তু টেস্ট ক্যারিয়ারে ১১তম হাফসেঞ্চুরি করতে ব্যর্থ হন লিটন। তিনি ৮১ বলে ৪৫ রান করে আউট হন। এদিন দ্বিতীয় ইনিংসে দলীয় ২৫ রান তুলতেই ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

এরপর মুশফিকের সঙ্গে প্রতিরোধ গড়ে ম্যাচ বাঁচানোর চেষ্টা করছেন সাকিব। সেই সঙ্গে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার সাকিব টেস্ট ক্যারিয়ারে ২৬ তম হাফসেঞ্চুরি করেছেন। কিন্তু এরপর দ্রুত রান তুলতে গিয়ে আউট হন তিনি। ১৩০ বলে ৯টি চারের সাহায্যে ৬৩ রান করেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। তাছাড়া পঞ্চম দিন ভাগ্য সহায় হয়নি মুশফিকের। তিনি ১৩৬ বলে ৪৮ রান করে আউট হন। এর ফলে তিনি দুই রানের আক্ষেপ নিয়ে সাজঘরে ফিরেন।

এর আগে, চতুর্থ দিন মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) পাকিস্তান ৪ উইকেটে ৩০০ রানে ইনিংস ঘোষণা করে। টাইগারদের ফলোঅন এড়াতে দরকার ছিল ১০১ রান। কিন্তু চতুর্থ দিন ৭ উইকেটে ৭৬ রান তুলে দিন শেষ করে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। পঞ্চম দিন ১১ রান যোগ করতেই বাকি ৩ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

তাছাড়া ঘরের মাঠে ৮৭ বাংলাদেশের সর্বনিম্ন রান। এর আগে, ২০০২ সালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ ৩১.৫ ওভারেই ৮৭ রানে অলআউট হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে।

Advertisement