মিয়ানমারের সামরিক আদালতে সু চির ৪ বছরের কারাদণ্ড

মিয়ানমারের সামরিক আদালতে সু চির ৪ বছরের কারাদণ্ড

মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চির বিরুদ্ধে চার বছরের কারাদণ্ডের রায় দিয়েছে দেশটির সামরিক আদালত। করোনা সংক্রান্ত বিধিনিষেধ ভঙ্গ ও উসকানির অভিযোগে তার বিরুদ্ধে সোমবার (৬ ডিসেম্বর) এ রায় দেয়া হয়।

চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর ক্ষমতা গ্রহণের পর সাবেক স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চির বিরুদ্ধে একাধিক মামলা করা হয়। এর মধ্যে আজ সোমবার প্রথম মামলার রায় দেয়া হলো। দেশটির সামরিক সরকারের এক কর্মকর্তা জৌ মিন টুন জানিয়েছেন, করোনা বিধিনিষেধ ভঙ্গ করায় দুই বছর ও উসকানি দেয়ায় সু চিকে দুই বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এর আগে সাবেক প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টকে একই অভিযোগে চার বছরের কারাদণ্ডের সাজা পেতে হয়েছে। খবর আল জাজিরার।

মিয়ানমারের ৭৬ বছর বয়সী রাজনৈতিক নেত্রী অং সান সু চির সমর্থকরা বলছেন, রাজনীতিতে যাতে তিনি উঠে দাঁড়াতে না পারেন সে কারণেই সামরিক আদালতে এ রায় দেয়া হয়েছে।

মালয়েশিয়ার সাংসদ এবং আসিয়ানের মানবাধিকার সংসদের চেয়ারম্যান চার্লস সান্তিয়াগো এ রায়ের তীব্র নিন্দা করেন। তিনি একে ‘বিচারিক উপহাস’ বলে মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেন, যেদিন থেকে মিয়ানমারে সামরিক সরকার ক্ষমতা দখল এবং অং সান সু চিসহ সেখানকার গণতন্ত্রকামী নেতাদের বন্দী করতে শুরু করেছে, ঠিক সেদিন থেকে তারা অবৈধভাবে নেয়া ক্ষমতার বৈধতা দিতে চেষ্টা করে যাচ্ছে।

Advertisement