পরিবহন ধর্মঘটে জিম্মি সারাদেশের মানুষ

পরিবহন ধর্মঘটে জিম্মি সারাদেশের মানুষ

দ্বিতীয় দিনের মতো পরিবহন ধর্মঘটে সারাদেশ অচল হয়ে পড়েছে। জিম্মি হয়ে পড়েছে মানুষ। দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে ঢাকায় আসা লোকজন যেমন পরিবহন ধর্মঘটের ফলে আটকে পড়েছেন ঠিক তেমনি বছর শেষে পরিবার-পরিজন নিয়ে বিভিন্ন স্থানে বেড়াতে যাওয়া হাজার হাজার মানুষ সেখানে আটকে পড়েছে।

পরিস্থিতি নিরসনে সরকারের পক্ষ থেকে ধর্মঘট প্রত্যাহারের আহ্বান জানানো হলেও পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা তা প্রত্যাখ্যান করেছে। এদিকে নৌ পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা আজ থেকে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। আলোচনায় বসার আগে ধর্মঘট প্রত্যাহার করবে না বলেও বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ জানিয়ে দিয়েছে। আগামীকাল রবিবার বিআরটিএ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে পরিবহন নেতৃবৃন্দের বৈঠকের আগে এ সমস্যা সমাধানের কোন সম্ভাবনা নেই বলে জানা গেছে।

পরিবহন ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিনেও রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলো থেকে কোন বাস ছেড়ে যায়নি। বাইরের জেলা থেকেও কোনো বাস ঢাকায় পৌঁছেনি। ধর্মঘটের প্রথম দিনের মতো আজও যাত্রীদের বিভিন্ন বাস টার্মিনালে অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। গাবতলী বাস টার্মিনালের সামনে থেকে পিকআপ ভ্যান, মোটরসাইকেল, সিএনজি অটোরিকশা এবং ভাড়ায় চালিত প্রাইভেটকারে কয়েক গুণ বেশি ভাড়া দিয়ে লোকজনকে বিভিন্ন গন্তব্যে যেতে দেখা যায়। চরম ভোগান্তি অপেক্ষা করেই একস্থান থেকে অন্যস্থানে তারা যাতায়াত করছে। সড়কে ছোট যানবাহনের চাপ আরো বেড়েছে।

Advertisement