রোহিঙ্গা ইস্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে যুক্তরাষ্ট্রের ১২ সিনেটরের চিঠি

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে যুক্তরাষ্ট্রের ১২ সিনেটরের চিঠি

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের মানবিক সহায়তা দেয়া ও জীবনযাত্রার মান উন্নয়নের আহ্বান জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ১২ জন সিনেটর। সম্প্রতি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনকে লেখা এক চিঠিতে তারা এ আহ্বান জানান। গত ৯ নভেম্বর সিনেটর মার্ক রুবিওর ওয়েবসাইটে এ চিঠি পাঠানোর তথ্য প্রকাশ করা হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত ৫ নভেম্বর এই ১২ জন সিনেটর চিঠিটি লেখেন। তারা হলেন- ডেমোক্র্যাট দলের মার্কো রুবিও, বেন কার্ডিন, ডিক ডারবিন, ক্রিস কুন্স, রন ওয়াইডেন, ক্রিস ভ্যান হলেন, এড মার্কি, করি বুকার ও এলিজাবেথ ওয়ারেন এবং রিপাবলিকান দলের জেফ মার্কলে, সুজান কলিন্স ও রজার উইকার।

চিঠিতে বলা হয়, মিয়ানমারের রাখাইনে নিজেদের আদি ভূমিতে প্রত্যাবাসনের পূর্ব পর্যন্ত ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গার সুরক্ষার বোঝা দুভার্গ্যজনকভাবে বাংলাদেশকে বহন করতে হচ্ছে। ২০১৭ সালের পর থেকে এ রোহিঙ্গাদের প্রতি দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনে বাংলাদেশের ভূমিকা প্রশংসনীয়। এ ছাড়া করোনা মহামারির সময়ে রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় বাংলাদেশ সরকারের পদক্ষেপও প্রশংসার দাবি রাখে।

তবে চিঠিতে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরের বিষয়ে কিছু পর্যবেক্ষণ ও বক্তব্য তুলে ধরে বলা হয়েছে, কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের জন্য মানবিক সহায়তা কার্যক্রম, শিক্ষা কার্যক্রম, জীবিকার সুযোগ সীমিত হওয়া ও ভাসানচরে স্থানান্তরের ক্ষেত্রে বল প্রয়োগের মতো বিষয়গুলোতে সিনেটররা উদ্বিগ্ন। বিশেষ করে ভাসানচর থেকে রোহিঙ্গাদের পালিয়ে যাওয়া এবং পরে তাদের আবার সেখানে ফিরিয়ে আনার খবর অত্যন্ত উদ্বেগজনক।

Advertisement