প্রেমিকাকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, দুই যুবক গ্রেপ্তার

প্রেমিকাকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, দুই যুবক গ্রেপ্তার

গাইবান্ধার ফুলছড়িতে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধর্ষণের ভিডিও ধারণের অভিযোগও রয়েছে ওই দুই যুবকের বিরুদ্ধে। গতকাল শনিবার নিজ এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত যুবক সাঘাটা উপজেলার ভরতখালী ইউনিয়নের ভাঙ্গামোড় গ্রামের মাহবুব মিয়া (২১) ও পলাশ মিয়া (২০)। আজ রোববার গ্রেপ্তারকৃতদের পর্নোগ্রাফি ও ধর্ষণ মামলায় আদালতে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গাইবান্ধা সদর উপজেলার এক কিশোরীর (১৫) সঙ্গে মাহবুব মিয়ার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একপর্যায়ে মাহবুব কিশোরীর কিছু অশ্লীল ছবি মুঠোফোনে ধারণ করে। সম্প্রতি তাদের সম্পর্কের অবনতি হলে মাহবুব কিশোরীর অশ্লীল ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখায়। ছবিগুলো মুছে ফেলার কথা জানিয়ে শুক্রবার দুপুরে মাহবুব তার বন্ধু পলাশকে নিয়ে গাইবান্ধা শহরে গিয়ে কিশোরীর সঙ্গে দেখা করে। এরপর তাকে ফুসলিয়ে ব্রহ্মপুত্র নদের ওপারে কাশবনে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এ সময় তারা দুজন একে অপরের ধর্ষণের ভিডিও মুঠোফোনে ধারণ করে এবং ধর্ষণের ঘটনা কাউকে বললে এই ভিডিও ভাইরাল করার হুমকি দিয়ে তারা সটকে পড়ে। পরে অসুস্থ কিশোরী স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় গাইবান্ধা শহরে বাসায় পৌঁছে তার মাকে সম্পূর্ণ ঘটনা জানায়। 

এ ঘটনায় শনিবার রাতে নির্যাতনের শিকার ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। পরে পুলিশ ওই দিন বিকেলে অভিযান চালিয়ে দুই যুবককে তাদের এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে। শনিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে ফুলছড়ি থানায় পর্নোগ্রাফি ও ধর্ষণ মামলা রেকর্ড করা হয়।

ফুলছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাওছার আলী বলেন, গ্রেপ্তারকৃত দুই যুবক কিশোরীকে ধর্ষণ এবং মোবাইলে ভিডিও ধারণের বিষয়টি পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। 

Advertisement