জুতার ভিতর ব্লুটুথ লাগিয়ে নকল শিক্ষক প্রার্থীদের!

জুতার ভিতর ব্লুটুথ লাগিয়ে নকল শিক্ষক প্রার্থীদের!

রাজস্থানে সরকারি স্কুলে শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায় নকল করতে গিয়ে গ্রেপ্তার হলেন পাঁচ জন। তবে অভিযুক্তদের নকল করার পদ্ধতি চোখ কপালে তুলেছে পুলিশেরও। চপ্পলের মধ্যে ব্লুটুথ লাগিয়ে পরীক্ষায় নকল করছিলেন অভিযুক্তরা!

রবিবার ছিল রাজস্থান এলিজিবিলিটি এগজামিনেশন ফর টিচার্স (রিট)-এর পরীক্ষা। সেই পরীক্ষায় অজমেঢ়ে চপ্পলের ভিতর ব্লুটুথ দিয়ে নকল করায় এক পরীক্ষার্থীকে ধরে পুলিশ। এর পর একই রকম ভাবে নকল করতে গিয়ে বিকান এবং সীকর থেকেও কয়েক জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

ঘটনা নিয়ে রতনলাল ভার্গব নামের এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, চপ্পলের সোলের মধ্যে ফোন এবং ব্লুটুথ ডিভাইস ভরে পরীক্ষার হলে এসেছিলেন ওই পরীক্ষার্থীরা। তার কানে একটি যন্ত্র ছিল। পরীক্ষা হলের বাইরে থাকা কেউ তাকে সাহায্য কর‌ছিলেন।

পুলিশ জানিয়েছে, খুব বুদ্ধি করে বানানো হয়েছে এই ‘নকল চপ্পল’। পুলিশ জানতে পেরেছে, প্রায় দু’লাখ টাকার বিনিময়ে পরীক্ষার্থীদের বিক্রি করা হয়েছে এই চপ্পল।

কিন্তু পরীক্ষা চলাকালীন কীভাবে এই নকলকারী চক্র সামনে এল? এ ব্যাপারে অজমেঢ়ের পুলিশ কর্মকর্তা জগদীশচন্দ্র শর্মা বলেছেন, চপ্পলের ভিতর ব্লুটুথ থাকা এক ব্যক্তিকে পরীক্ষার শুরুতেই গ্রেপ্তার করেছিলাম আমরা। তার মাধ্যমে জানতে পারি, যারা এভাবে নকল করছে তাদের সকলের সঙ্গে ওই ব্যক্তির যোগাযোগ রয়েছে। এরপর সমস্ত জেলার পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়। এর পর জুতো, চপ্পল পরে পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢোকায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

রাজস্থানের সরকারি বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করার জন্য পাশ করতে হয় ‘রিট’ পরীক্ষা। ৩১ হাজার পদের জন্য এ বছর পরীক্ষায় বসেছিলেন প্রায় ১৬ লাখ পরীক্ষার্থী।

0 মন্তব্যসমূহ

-------- আমাদের সকল পোস্ট বা নিউজ বাংলাদেশের বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকা থেকে নেয়া - প্রতিটি পোস্টের ক্রেডিট সেই পোস্টের শেষ ভাগে দেয়া আছে।