মুখে করে স্বর্ণ পাচার!

মুখে করে স্বর্ণ পাচার!

শরীরের স্ক্যান করতে গিয়ে মুখের মধ্যে ধাতুর উপস্থিতি টের পেয়েছিলেন শুল্ক দপ্তরের কর্মকর্তারা। উজবেকিস্তান থেকে আসা দুই নাগরিকের মুখ খোলাতেই তার মধ্যে ‘‌স্বর্ণ গহ্বর’‌ দেখে, অবাক হন কর্মকর্তারা।

সোনা পাচার করতে গিয়ে দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তার করা হল দুই উজবেকিস্তানের নাগরিককে। অভিযুক্তদের মুখের মধ্যে লুকানো ৯৫১ গ্রাম সোনা উদ্ধার করেছে শুল্ক বিভাগের এয়ার ইন্টেলিজেন্স ইউনিট। এমনকী, দাঁতের মাড়ির নীচে সোনার চেনও লুকানো ছিল বলে সূত্রের খবর।

শুল্ক বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, দুবাই হয়ে দিল্লি বিমানবন্দরে নেমেছিল দুই অভিযুক্ত উজবেকিস্তানের নাগরিক। বিমানবন্দর থেকে বের হওয়ার সময় কাস্টমস চেকিংয়ে ধরা পড়ে যান ওই দুই ভিনদেশি পাচারকারী। তারপরই অভিযুক্তদের আটক করে তল্লাশি চালানো হয়। সোনা উদ্ধারের পর তাদের গ্রেপ্তার করেন বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা।

অন্য দিকে, দিল্লি বিমানবন্দরে জামার কলার ও হাতার ভাঁজে ৫০০ গ্রাম সোনার পেস্ট পাচারের অভিযোগে আরও দুই পাচারকারীকে গ্রেপ্তার করেছে শুল্ক দপ্তরের কর্মকর্তারা। দুবাই থেকে ফেরার পথে দিল্লি বিমানবন্দরে ওই দুই যাত্রীদের আটক করা হয়।

শুল্ক দপ্তরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দুবাই থেকে আসা দুই যাত্রীর জামার কলার ও হাতার ভাঁজ থেকে ৫৬০ গ্রাম সোনার পেস্ট উদ্ধার করা হয়েছে। শুল্ক দপ্তর সূত্রে আরও জানা গেছে, আটকদের মধ্যে একজন বিহারের দারভাঙ্গা জেলার বাসিন্দা মহম্মদ উমর আলি (‌৩১)‌ ও উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদের বাসিন্দা ধর্মেন্দ্র রাজভর (‌২৬)‌। দুবাই থেকে এফজেড ৪৩১ বিমানে দুবাই থেকে দিল্লিতে নামে অভিযুক্তরা।

তবে শুল্ক দপ্তর এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তল্লাশি ও ব্যাগেজ এক্স-রে করার সময় সন্দেহজনক কিছু পাওয়া যায়নি। তবে ওই দুই যাত্রীর উপর সন্দেহ হওয়ায়, তাদের পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পরীক্ষা করা হয়।

0 মন্তব্যসমূহ

-------- আমাদের সকল পোস্ট বা নিউজ বাংলাদেশের বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকা থেকে নেয়া - প্রতিটি পোস্টের ক্রেডিট সেই পোস্টের শেষ ভাগে দেয়া আছে।